কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন সবাইকে দিয়ে নিই, তারপর আমি নেব, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হয়ে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।তিনি বলেন আগে আগে নিলে বলবে, নিজেই নিল আগে , কাউকে দিল না। সবাইকে দিয়ে নিই তারপর আমি নেব।

২৭ জানুয়ারি, বুধবার বিকেল সাড়ে ৩টায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হয়ে ভ্যাকসিন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। ওইদিনই ২৫ জনকে করোনা টিকা দেওয়া হবে বলা হয়। ডাক্তার, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী, সাংবাদিক, পুলিশ ও আর্মি এদের মধ্যে যারা টিকা পাবেন তাদের ৫ জনের টিকা দেওয়া দেখবেন প্রধানমন্ত্রী। বাংলাদেশের প্রথম করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন গ্রহণ নেন কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স রুনু বেরোনিকা কস্তা। আরও দুজন সিনিয়র স্টাফ নার্স মুন্নী খাতুন ও রিনা সরকারও টিকা নেবেন তার সঙ্গে।

এছাড়া চিকিৎসক হিসেবে প্রথম ভ্যাকসিন নেন মেডিসিন কনসালটেন্ট ডা. আহমেদ লুৎফর মবিন। ভ্যাকসিনেটর হিসেবে ভ্যাকসিন প্রদানের জন্য সিনিয়র স্টাফ নার্স রুনা আক্তার ও দীপালি ইয়াসমিনের নাম রয়েছে।প্রথম টিকা গ্রহীতা হিসেবে রুনা বেরোনিকার নাম থাকলেও তিনি শারীরিকভাবে সুস্থ না থাকলে তালিকার অন্য দুজনের একজনকে টিকা দেয়া হবে বলা হয়।

২৭-০১-২০২১ প্রথম টিকা গ্রহণের সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স রুনু বেরোনিকা কস্তাকে জিজ্ঞেস করেন তোমার ভয় লাগছে না তো? জবাবে সিনিয়র স্টাফ নার্স রুনু বলেন, না। প্রধানমন্ত্রী বলেন, খুব সাহসী তুমি। তুমি সুস্থ থাকো, ভালো থাকো। আরও অনেক রোগীর সেবা করো সেই দোয়া করি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিশ্বের অনেক দেশ এখনও করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন প্রদান কার্যক্রম শুরু করতে পারেনি। আমরা এই ঘনবসতিপূর্ণ দেশে শুরু করেছি যা ঐতিহাসিক দিন। এরপর বলেন ইনশাআল্লাহ আমরা করোনার এ স্থবির অবস্থা থেকে উত্তরণ ঘটাব।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনায় সব স্থবির হয়আয়  চরম আতঙ্ক ছড়িয়েছে,ছেলে পর্যন্ত মায়ের লাশ স্পর্শ করেনি। আত্মীয়স্বজনরা কেউ এগিয়ে আসেনি। এমন সংকটে আমরা মানুষের পাশে ছিলাম। আর্থসামাজিক গতিশীলতা রক্ষায় বিশেষ প্রণোদনা দিয়েছি। স্বাস্থ্য সুরক্ষায় যাবতীয় উদ্যোগ নিয়েছি। ভ্যাকসিনও অনেক দেশের আগে আমরা দিচ্ছি।শেখ হাসিনা বলেন, আপনারা জানেন, যেকোনো ভ্যাকসিন আসলে টেস্ট করার পর দেয়া হয়।তিনি বলেন আমাদের দুর্ভাগ্য, কিছু লোক থাকে নেতিবাচক সমালোচনা করে। তারা নিজেরা কাউকে সাহায্য করে ই না, অন্যের কাজের প্রচুর মালোচনা করে মানুষকে ভয়ভীতি দেখায়। পত্রিকা খুললেই দেখবেন, তারা সবকিছুতে দোষ খোঁজে বেড়ায়। ভ্যাকসিন আসবে কিনা?, আসলে এত দাম কেন? কাজ করবে কিনাভ্যাকসিন ? তাদের কিছুই ভালো লাগে না রোগ এমন সমস্যা। অবশ্য এ রোগের ভ্যাকসিন আবিষ্কার হয়েছে কিনা আমার জানা নেই। আমরা তাদেরও করোনা টিকা দেব। তাদের বলব, তারা যেন সাহস করে আসে। কারণ তাদের কিছু হলে আমাদের সমালোচনা করবে কে আসলে ? তাদের সমালোচনা যতই হয়েছে, ততই কাজে আমরা উৎসাহ পেয়েছি।

দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়ে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, যদি করোনায় বেশি আক্রান্ত হয় যায় মানুষ, সে জন্য আমরা ব্যবস্থা রেখেছি। ভ্যাকসিন ডিসপোজাল সহ সব প্রস্তুতিও আছে আমাদের। আপনারা আল্লাহর কাছে দোয়া করবেন যেন করোনায় আমরা সবাইকে সুরক্ষা দিতে পারি। আমরা যেন আমাদের এই যাত্রায় সফল হতে পারি, সবাই মিলে আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করার আহ্বান ও অনুরোধ জানাচ্ছি।

শেখ হাসিনা বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতামত ও অনুশাসন মেনেই আমরা ভ্যাকসিন কার্যক্রম শুরু করছি। জেখানে আমার আকাঙ্ক্ষা ছিল খুব কাছে থেকে এ কাজের উদ্বোধন করব। কিন্তু তা আর হয়ে উঠলো না। কারোনার কারণেই আমাকে বন্দি জীবনযাপন করতে হচ্ছে।
প্রথম দিন দেয়া হচ্ছে ৩০ জন কে , ২৭ তারিখ ২৫ জন কে দেয়ার কথা উল্লেখিত ছিল, এর আগেবেলা সাড়ে ১১টায় দিকে রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে  পৌঁছায় ভ্যাকসিনের ভায়াল। সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচি ইপিআই স্টোর থেকে কোল্ডবক্সে ২০টি ভায়ালে আনা হয়এছে  ২০০ ডোজ কোভিশিল্ড ভ্যাকসিন । এগুলো সংরক্ষণ করা হবে এখানে ২ থেকে ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ৭২ ঘণ্টা পর্যন্ত । সংশ্লিষ্টরা জানান, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রটোকল অনুযায়ী পর্যায়ক্রমে প্রয়োগ করা হবে ভারত থেকে নিয়ে আসা এ প্রতিষেধক। এখানে, এইদিকে  সারাদেশে একযোগে ৭ ফেব্রুয়ারি করোনার টিকাদান কর্মসূচি শুরু হবে বলে জানান, স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।করোনার টিকাদান কর্মসূচি  প্রসঙ্গে এই মন্তব্য তুলে ধরেন তিনি।

অন্যান্য লিখাসমুহ যা আপনি জানেন না বা জানলে অবাক হবেনঃ

রূপচর্চার জন্য দারুণ কার্যকর লেবুর ফেসপ্যাক

একইসাথে রূপচর্চা রেসিপি ও রোগনিরাময়তে সেরা দুই সবজি কি আজই জেনে নিন

পালং শাক এর রূপচর্চার সাথে পুষ্টি গুনাবলি আজই জেনে নিন

চোখের পাপড়ি ঘন আকর্ষণীয় করা সহজ ঘরোয়া পদ্ধতি আসুন জেনে নেই

থানকুনি পাতায় রয়েছে সারাজীবন যৌবন ধরে রাখার বিশেষ ক্ষমতা

গ্রিন টি প্রস্তুত খাওয়ার উপযুক্ত সময় নিয়ম ও দৈনিক জীবনের সুবিধাদি

ফিট থাকতে গ্রিন টির সুবিধা অসুবিধা 

স্বাস্থ্যকর মুলা শাক রেসিপি ও অন্যান্য গুনাগুন

মাছ দিয়ে লাল শাক রান্না Mach Dia Lal Shak Recipi

উদয় সিং Dance Dewane নাচ সবাইকে হতবাক করে অশ্রুসিক্ত হন মাধুরী দীক্ষিত সহ অন্যান্য বিচারক