৯ দিনের আলটিমেটাম

সরকারি চাকরি জন্য শুক্রবার দুপুরে দিকে রাজধানীর শাহবাগে বিক্ষোভ ও পদযাত্রা কর্মসূচি শেষ এ ৯ দিন এর আলটিমেটাম দেন আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা।সরকারি চাকরি তে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ বছর করার দাবি তে ৯ দিন এর সময় বেঁধে দিয়েছেন তাঁরা। শাহবাগ এ বিক্ষোভ কর্মসূচি শেষ এর দিকে পদ যাত্রা শুরু হয়।

কর্মসূচি তে রাজধানী ঢাকা সহ দেশে এর ভিন্ন ভিন্ন জেলা থেকে আসা ৩৫ প্রত্যাশী শিক্ষার্থী রা অংশ নেন এই আনদোলন এর । পরে পদযাত্রা শেষ এ বৈঠকে বসেন আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা। বৈঠক থেকে দাবি আদায়ে ৯ দিনের সময় বেঁধে দেয়া হয়।

এ দিকে সাধারণ ছাত্র পরিষদের সভাপতি ও আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের মুখপাত্র ইমতিয়াজ বলেন, চাকরি তে প্রবেশে এর বয়স ৩০ বছর এ সীমানা প্রাচীর বাংলাদেশে এর লাখো কোটি ছাত্র সমাজ কে অবরুদ্ধ করে রেখেছে। তারা নিজেদে এর যোগ্যতা প্রমাণে এর সুযোগ থেকে বঞ্চিত হচছে।

উচ্চ শিক্ষিত বেকার যুব সমাজ যখন উপেক্ষিত  হয়, তখন বর্তমান এ রাষ্ট্রপতি স্পিকার থাকা অবস্থায় ২০১২ সালের ৩১ জানুয়ারি জাতীয় সংসদে চাকরি তে প্রবেশ এর বয়স ৩৫ করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। এ তে যুব সমাজ আশার আলো দেখেছিল।তিনি আর ও বলেন, জন প্রশাসন মন্ত্রণালয় এর সংসদীয় স্থায়ী কমিটি ২১ তম বৈঠক এ চাকরি তে প্রবেশ এর বয়স ৩২ বছর সুপারিশ করে নেয়। নবম জাতীয় সংসদে ১৪ তম অধিবেশন এ ৩৫ বছর করার প্রস্তাব গৃহীত হয়।

 

আমরা অনেকেই স্নাতক ও স্নাতকোত্তর করছি ও একটি চাকরি নামক সুযোগ পাওয়ার জন্য দিন রাতের মাঝে ঘুমের ভেজাল করে ফেলছি। আর সরকারী চাকরী নামক সোনার হরিন জন্য পিছন ছুটতে ছুটতে আমাদের হতাশার সাগরের কিনারায় ভেসে আনার ডেউ কানে বাজে। এই দিক দিয়ে বয়স তো বেড়েই চলছে বেকারত্ব ও সাথে পারিবারিক হতাশা আমাদের প্রতি। এই দিকে বয়স ও বিয়ে বাচ্চা নেয়া সংসার চালানো এসব তেনা প্যাছানো কথা ও খোঠা তো বোনাস আকারে আছেই। এই দিক দিয়ে  স্নাতকোত্তর  শেষ এরপর থেকেই একাধিক সরকারি চাকরিতে আবেদন করেছি দুইশত থেকে শুরু করে এক হাজার টাকা ফী দিয়ে, বেসরকারি চাকরির চেষ্টাও করেছি । আশা করছি, এই বছর একটা ভালো চাকরি হয়ে যাবে। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে সেই স্বপ্ন থমকে গেছে।

এখন মহামারি এর দ্বতীয় ঢেউ এর কারণে সবকিছু ই আটকে আছে আমাদের শিক্ষিত বেকার দের । কোন সার্কুলার নাই, কোন চাকরির পরীক্ষা নেই, নাই কোণ টিউশন। এই মহামারি কবে শেষ হবে, কবে আবার চাকরির প্রক্রিয়া শুরু হবে জানি না ই।

বর্তমানে আমরা যারা বেকার আছি ও বাড়ছে এর সংখ্যা,  চাকরির খুব প্রয়োজন, তাদের জীবন টা এই মহামারি এর কারণে একটা অনিশ্চয়তার ভেতর দিয়ে যাচ্ছে। কোন কাজ নেই, যতদিন যাচ্ছে পরিবারের জন্য বোঝা হয়ে যাচ্ছি দিন পর দিন। পরিবারের সদস্যদের মলিন চেহারা সেই হতাশা আরও বাড়িয়ে দিচ্ছে আমাদের।

যোগ হয়ে গেল হতাশার সাগরে ডুব দেয়ার মত অবস্থা। আল্লাহ কখন এসব থেকে আমাদের পরীক্ষা শেষ করবেন, আমাদের জীবন সহজ করে দিবে, বেকারত্ব লাঘব আনবে, মহামারীর প্রকটতা হ্রাস করবেন সে অব্দি চেষ্টা ও ধ্যরজ ধরে লেগে থাকার বিকল্প নেই। আল্লাহ তায়ালা আমার সকলের কস্ট ও পরিশ্রমের সুফল এনে দিক এবং রিজিক ও স্বাস্থ্য ভাল রাখার ফয়সালা দিক।

অন্যান্য লিখাসমুহ যা আপনি জানেন না বা জানলে অবাক হবেনঃ

রূপচর্চার জন্য দারুণ কার্যকর লেবুর ফেসপ্যাক

একইসাথে রূপচর্চা রেসিপি ও রোগনিরাময়তে সেরা দুই সবজি কি আজই জেনে নিন

পালং শাক এর রূপচর্চার সাথে পুষ্টি গুনাবলি আজই জেনে নিন

চোখের পাপড়ি ঘন আকর্ষণীয় করা সহজ ঘরোয়া পদ্ধতি আসুন জেনে নেই

থানকুনি পাতায় রয়েছে সারাজীবন যৌবন ধরে রাখার বিশেষ ক্ষমতা

গ্রিন টি প্রস্তুত খাওয়ার উপযুক্ত সময় নিয়ম ও দৈনিক জীবনের সুবিধাদি

ফিট থাকতে গ্রিন টির সুবিধা অসুবিধা 

স্বাস্থ্যকর মুলা শাক রেসিপি ও অন্যান্য গুনাগুন

মাছ দিয়ে লাল শাক রান্না Mach Dia Lal Shak Recipi

উদয় সিং Dance Dewane নাচ সবাইকে হতবাক করে অশ্রুসিক্ত হন মাধুরী দীক্ষিত সহ অন্যান্য বিচারক

1 মন্তব্য